দৈনিক মতামত

প্রতিভা বিকাশের অন্যতম মাধ্যম

চিঠি

প্রিয় বোরকাওয়ালী!(রোমানটিক চিঠি)আল-আমি হোসেন রিমন

প্রিয় বোরকাওয়ালী!(রোমানটিক চিঠি)আল আমিন হোসেন রিমন।

কখনো পূর্ণিমা রাতে চাঁদের জ্যোৎস্না অবলোকন করেছো? সুবিশাল আকাশের শূণ্যতার মাঝে কী সুন্দর ঝলমল চাঁদের আলো। দেখলেই যে কেউ প্রেমে পড়ে যায়। হারিয়ে যায় স্বপ্ন দেখার এক অজানা কল্পপুরে। যেখানে থাকে স্বপ্নপরী কে নিয়ে চাঁদের জ্যোৎস্নায় ভেজার এক দারুণ অনুভূতি।
হ্যা! জানো!
আমিও স্বপ্ন দেখি, একটা চাঁদিকে নিয়ে। এই চাঁদ আকাশের চাঁদের চেয়েও বেশী পূর্ণিমাময়। তার সৌন্দর্যেরর কাছে চাঁদের সৌন্দর্য কিছুই না। তার জ্যোৎস্নার কাছে চাঁদের জ্যোৎস্না তুলনাই হয় না। তার তুলনা সে নিজেই। আর সে চাঁদটি হলো, আমার হৃদপিন্ডে ভালোবাসায় খচিত একটি নাম ”

জানো!
তোমাকে দেখার তীব্র আকাঙ্ক্ষা আমাকে ঘুমোতে দেয় না। তোমাকে নিয়ে ভাবনাগুলো আমাকে কেমন যেন এলোমেলো করে দেয়। যার বর্ণনা আমি ভাষা প্রকাশে নির্বাক। হুমম সত্যিই বলছি। বিশ্বাস না হলে একবার ছুঁয়ে দেখ। আমি এখনো স্ব-শরীরে বিদ্যমান নেই। আমার শরীর আছে। কিন্তু মন! সে তার চাঁদের জ্যোৎস্না অবলোনকে ব্যস্ত।

জানো! আমার না খুব ভয় হয়।
পূর্ণিমাময় চাঁদ টা যেমন আলো বিলাতে বিলাতে ভোরক্ষণে এসে পৌছায়। তখন সূর্য নামক এক প্রবল ক্ষমতাসীন এসে, চাঁদের অস্তিত্ব কে কেড়ে নেয়। ঠিক তেমনি আমার ভয় হয়, আমার চাঁদকে কেউ যেন আমার কাছ থেকে কেড়ে না নেয়।

যে টিপসে এলার্জি থেকে মুক্তি পেলামঃ-

কলিজা! এই কলিজা! শোনো!
কখনো হারিয়ে যেও না প্লিজ। বিশ্বাস করো, তোমাকে ভীষণ ভালোবাসি। অনেক বেশী ভালোবাসি। তুমিহীনা আমার মূহুর্ত গুলো, মরুপ্রান্তরের তৃষ্ণার্ত পথিকের মত। যে এক ফোঁটা পানির জন্য হা করে থাকে। আজ আর না। ভালো রেখ নিজেকে। ভালো থেকো সবসময়।

ইতি

কবি আল-আমিন হোসেন রিমন

21 COMMENTS

LEAVE A RESPONSE

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।